Pallibarta.com | ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যৌতুকের টাকার জন্য গৃহবধূকে বিষপানে হত্যা - Pallibarta.com ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যৌতুকের টাকার জন্য গৃহবধূকে বিষপানে হত্যা - Pallibarta.com

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যৌতুকের টাকার জন্য গৃহবধূকে বিষপানে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যৌতুকের টাকার জন্য গৃহবধূকে বিষপানে হত্যা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় তালশহর পূর্ব ইউনিয়নের অষ্টগ্রাম গ্রামে যৌতুকের টাকার জন্য পারুল বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে বিষপান করিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে।

নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ শুক্রবার (২১ আগস্ট) রাত ১২টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে মারা যান। নিহত গৃহবধূ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার ঘাটুরা পশ্চিমপাড়া এলাকার শরীফ খন্দকারের মেয়ে।

নিহতের চাচা ধনমিয়া খন্দকার অভিযোগ করে বলেন, গত ২০১৩ সালে ঘাটুরা পশ্চিম পাড়ার শরীফ খন্দকারের মেয়ে পারুল বেগমের সঙ্গে তালশহর পূর্ব ইউনিয়নের মফিজ মিয়ার ছেলে খোকনের সঙ্গে বিয়ে হয়। এর তাদের ঘরে ৬ বছরের একটি ছেলে এবং ৩ বছরের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে।

গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই স্বামী খোকন যৌতুকের টাকার জন্য প্রায়ই নির্যাতন করে আসছিল। এ নিয়ে থানার মধ্যে একাধিকবার সালিশ হয়। কিন্তু গৃহবধূ পারুলের ওপর স্বামী খোকনসহ তার মা-বোনের অমানুষিক নির্যাতন কমেনি। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার গত (১৯ আগস্ট) বিকেলে আবারও যৌতুকের টাকার জন্য পারুলকে মারধর করে স্বামী খোকন ও তার পরিবারের সদস্যরা।

নিহত গৃহবধূর স্বজনদের অভিযোগ, তাকে জোর করে বিষপান করিয়ে বাড়ির সামনে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে যায় স্বামীর বাড়ির লোকজন। পরে স্থানীয়রা পারুলকে উদ্ধার করে বুধবার সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। গত দু’দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর শুক্রবার  রাতে মারা যায় পারুল। তার মৃত্যুতে শ্বশুরবাড়ির লোকজনদের দায়ী করে দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করে স্বজনেরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পর অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০