Pallibarta.com | ভারতীয় চিকিৎসককে জার্সি উপহার রিজওয়ানের - Pallibarta.com

শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১

ভারতীয় চিকিৎসককে জার্সি উপহার রিজওয়ানের

ভারতীয় চিকিৎসককে জার্সি উপহার রিজওয়ানের

ভারতীয় চিকিৎসককে জার্সি উপহার রিজওয়ানের আইসিইউ থেকে বাইশ গজে। হাসপাতালের বিছানা থেকে দুবাইয়ের সেমিফাইনাল-মঞ্চে। বোঝাই যাচ্ছে পাকিস্তান ব্যাটার-কিপার মোহাম্মদ রিজওয়ানের কথা বলা হচ্ছে।এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের দৃষ্টিতে একজন ‘বীর’ রিজওয়ান। এই তকমা তাকে এনে দিয়েছে তার বীরত্বের বদৌলতে।

গত পরশু দুবাইয়ে টি ২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে পাকিস্তান পাঁচ উইকেটে হেরে যায় অস্ট্রেলিয়ার কাছে। ওই ম্যাচে অকুতোভয় রিজওয়ান হাফ সেঞ্চুরি করেন। অথচ ম্যাচের আগে বুকের সংক্রমণ নিয়ে দুইদিন ধরে আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন তিনি। দুদিনেই সুস্থ হয়ে মাঠে নেমে ৫২ বলে ৬৭ রানের নির্ভীক ইনিংস খেললেন।

পাক সংবাদমাধ্যমের খবর রিজওয়ানকে সুস্থ করে তুলেছেন ভারতীয় চিকিৎসক সাহির সাইনালবদিন।

ম্যাচ হারলেও ভারতীয় সেই চিকিৎসকের উপকারের কথা ভুলেননি রিজওয়ান। খেলা শেষে সাহিরের সঙ্গে যোগাযোগ করেন রিজওয়ান এবং নিজের সই করা জার্সি উপহার দেন তাকে।

রিজওয়ানের এমন আচরণ প্রশংসিত নেটদুনিয়ায়। নেটিজেনদের মতে, ক্রিকেটই পেরেছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দেশের নাগরিকের মধ্যে বন্ধুত্বের সেতুবন্ধন তৈরি করতে। সীমান্ত উত্তেজনা, বৈরিতা সব ছাপিয়ে ভাতৃত্বের উদাহরণ তৈরি করেছেন রিজওয়ান।এদিকে রিজওয়ানের দ্রুত সেরে ওঠার ঘটনায় বিস্মিত চিকিৎসক সাহিরও। তার মতে দেশের হয়ে খেলার অদম্য ইচ্ছা ও মানসিকতাই রিজওয়ানকে দ্রুত সুস্থ করে তোলে।

গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে চিকিৎসক সাহির বলেন, ‘রিজওয়ান হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে শুধু একটা কথাই বলতেন – আমি খেলব। আমাকে দলের সঙ্গে থাকতে হবে। দেশের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে খেলতে নামার অদম্য আগ্রহ ছিল রিজওয়ানের। তিনি দৃঢ় এবং আত্মবিশ্বাসী ছিলেন। যে সময়ের মধ্যে রিজওয়ান সুস্থ হয়ে ওঠেন তা আমাদের অবাক করেছে। তার সংক্রমণ মারাত্মক ছিল। এই ধরনের সংক্রমণ থেকে কোনো রোগীর সুস্থ হতে অন্তত পাঁচ থেকে সাত দিন সময় লাগে।’

আরব আমিরাতে বিশ্বকাপে খেলতে এসে রিজওয়ানের হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ার বিষয়ে সাহির বলেন, বেশ কিছু দিন ধরেই কাশি ও বুকে ব্যথা হচ্ছিল রিজওয়ানের। ওই অবস্থাতেই খেলছিলেন তিনি। সমস্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে বুকের ব্যথা খুব বেশি বেড়ে গেলে আমরা তাকে সঙ্গেসঙ্গে আইসিইউতে ভর্তি করি।’

আইসিইউতে ৩৫ ঘণ্টা রেখে রিজওয়ানকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন সাহির। তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড় হওয়ায় অন্যদের থেকে শারীরিক ক্ষমতা বেশি রিজওয়ানের। সেই ক্ষমতা ও আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস তাকে দ্রুত সুস্থ করে তুলেছে।’

তথ্যসূত্র: ইউবি২৪নিউজ, টাইমস অব ইন্ডিয়া

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০