Pallibarta.com | ৭০০ ইলিশ বিক্রি হয়েছে ১১ লাখ টাকায় ........................

বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

৭০০ ইলিশ বিক্রি হয়েছে ১১ লাখ টাকায়

৭০০ ইলিশ বিক্রি হয়েছে ১১ লাখ টাকায়

বরগুনার পাথরঘাটা বিএফডিসি পাইকারি মাছ বাজারে সাতশ ইলিশ মাছ ১১ লাখ টাকায় বেচা কিনা হয়েছে। শনিবার (৭ আগস্ট) বিকেল ৪ টার দিকে পাথরঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান তার মালিকানাধীন এফবি সাইফ ২ ট্রলারের মাছ বিক্রি করেন। প্রতিটি মাছের ওজন হয়েছে ১ কেজির উপরে। ওপেন ডাকে বিএফডিসি বাজারের আড়দার মোস্তফা কামাল আলম প্রতিমণ সর্বোচ্চ ৭২হাজার টাকা দরে সাবেক কাউন্সিলর মিরাজ হোসেন এর কাছে বিক্রি করেন। ওপেন ডাকে ২০জন মৎস্য পাইকার অংশগ্রহণ করেছেন।

মোস্তফা কামাল জানান, সাগরে ইলিশ ধরার ওপর ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে উপকূলীয় এলাকায় প্রবল বর্ষণের পর গত ২৮জুলাই পাথরঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কবিরের ৮টি মাছধরা ট্রলার জাল নিয়ে সাগরে যায়। মাছ ধরার ট্রলার গুলোর মধ্যে একটি ট্রলার আজ মাছ নিয়ে ঘাটে ফিরেছে। সাগরে মাছ স্বল্পতার কারণে পাইকারি বাজারে মাছের দাম চড়া ছিল এ কারণে ৭০০ মাছের দাম ১১ লক্ষ টাকা হয়েছে। শত হিসেবে মাছগুলো বিক্রি করা হয়েছে। প্রতিটি মাছের দাম পড়েছে দেড় হাজার টাকার উপরে। তিনি জানান, ৬৫ দিনের অবরোধের সময় ভারতীয় ট্রলারে মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ায় সাগরে মাছের সংকট দেখা দিয়েছে৷ আজকের পাথরঘাটা বাজারে ৩৭টি ট্রলারে মাছ বিক্রি করেছেন ।এর মধ্যে তিনটি ট্রলারে মাছ লাভের মুখ দেখেছে। অন্য টলার গুলো সম্পূর্ণ লোকসানে পড়ছেন।

মোস্তফা গোলাম কোবির জানান, আমার প্রতিটি ট্রলারে ২ থেকে ২লাখ ২০ হাজার টাকার তৈল ও রসদ সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। শুধু একটি ট্রলারে মাছ পেয়েছে । অন্যগুলো টলারে মাছ পাবে কিনা আমার সন্দেহ। যত টাকায় মাছ বিক্রি করি এখন পর্যন্ত আমরা লোকসানের মুখে আছি। তারপরও আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি৷ পাথরঘাটা বিএফডিসি পাইকারি মৎস্য বাজারের আড়তদার সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর জমাদ্দার জানান। এবছর মৎস্য সিজনে গত ২৮ জুলাই থেকে মাছ ধরার ট্রলার সাগরে যাওয়ার শুরু করেছে ।এই ট্রলারে আজকের দু-একটি ট্রলারে মাছ বিক্রি করেছে অন্যান্য ট্রলারগুলো সাগর থেকে শূন্য হাতে ফিরেছেন বলে জানান।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০