Pallibarta.com | সুদের টাকা না পেয়ে ঋণগ্রহীতার কান কাটলেন তিনি! - Pallibarta.com

রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

সুদের টাকা না পেয়ে ঋণগ্রহীতার কান কাটলেন তিনি!

সুদের টাকা না পেয়ে ঋণগ্রহীতার কান কাটলেন তিনি!

সুদের টাকা না পেয়ে ঋণগ্রহীতার কান কাটলেন তিনি!
বগুড়ার শাহজাহানপুরে সুদের টাকা না পেয়ে ঋণগ্রহীতার কান কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক দাদন ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগীর অভিযোগ, ২০ হাজার টাকায় প্রতি সপ্তাহে ২ হাজার টাকা করে ১০ সপ্তাহ সুদ দেয়ার পর, দুই সপ্তাহ দিতে না পারায় তার কান কেটে দেওয়া হয়।
এ ঘটনায় মামলা হলে প্রধান আসামি মজনু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

চিকিৎসার খরচ যোগাতে না পেরে কানের দুল বন্ধক রেখে তিন মাস আগে শাজাহানপুর উপজেলার মাদলা মালিপাড়া গ্রামের এনামুল হক পার্শ্ববর্তী চালতা গ্রামের মজনু মিয়ার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা নেয়। শর্ত থাকে প্রতি সপ্তাহে মজনু মিয়াকে ২ হাজার টাকা সুদ দিতে হবে।

আড়াই মাস সুদ দেওয়ার পর গত দুই সপ্তাহ সুদের টাকা দিতে না পাড়ায় মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লোকজন নিয়ে এনামুলের বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। পিটিয়ে আহত করে স্ত্রী নাজমা বেগমসহ এনামুলকে। এতেই ক্ষান্ত হয়নি সন্ত্রাসী বাহিনী, পরে তারা এনামুলের একটি কান কেটে নেয়।

আহত এনামুল বলেন, তারা এসে আমাকে মেরেছে। আমার কান কেটে দিয়েছে। আমি এর বিচার চাই।
এলাকাবাসী জানায় এই দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পরে পড়ে এলাকার অনেকে আজ বাড়ি ছাড়া।
তারা বলেন, মজনুর কারণে প্রায় ১৫টি পরিবার এখন বাড়ি ছাড়া। টাকা দিতে দেরি হলেই তার দলবল নিয়ে এসে আক্রমণ করে।

বুধবার সকালে শাজাহানপুর থানায় আহত এনামুলের স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে মামলা করলে র‌্যাব সদস্যরা বগুড়ার গাবতলী উপজেলা থেকে মামলার প্রধান আসামী মজনু মিয়াকে গ্রেফতার করে।

র‍্যাবের বগুড়া স্কোয়ার্ডন লিডার সোহরাব হোসেন বলেন, মজনুকে গ্রেফতার করতে আমরা অভিযান চালাই। এক পর্যায়ে তাকে গ্রেফতার করতেও সক্ষম হয়েছি। নির্যাতিত এনামুল বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০