Pallibarta.com | বিদেশি শিক্ষার্থী-চাকরিপ্রত্যাশীদের কানাডায় বসবাসের নতুন সুযোগ - Pallibarta.com

সোমবার, ১৬ মে ২০২২

বিদেশি শিক্ষার্থী-চাকরিপ্রত্যাশীদের কানাডায় বসবাসের নতুন সুযোগ

বিদেশি শিক্ষার্থী-চাকরিপ্রত্যাশীদের কানাডায় বসবাসের নতুন সুযোগ-pallibarta ছবি: সংগৃহীত/পল্লিবার্তা

অধ্যয়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি উচ্চশিক্ষিত ও দক্ষ চাকরিপ্রত্যাশীদের জন্য বাড়তি সুবিধা ঘোষণা করেছে কানাডা সরকার। আগামী জুলাই মাসের শুরুর দিকে কানাডিয়ান এক্সপেরিয়েন্স ক্লাস (সিইসি), ফেডারেল স্কিলড ওয়ার্কার (এফডব্লিউসি) ও ফেডারেল স্কিলড ট্রেড (এফএসটি) প্রার্থীদের জন্য এক্সপ্রেস এন্ট্রি ড্র ফের শুরু করতে যাচ্ছে দেশটি। শনিবার (২৩ এপ্রিল) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কানাডার অভিবাসনমন্ত্রী শন ফ্রেজার সম্প্রতি একটি নতুন অস্থায়ী নীতি ঘোষণা করেছেন। এতে বলা হয়েছে, যেসব বিদেশি গ্র্যাজুয়েটের অস্থায়ী বসবাসের মেয়াদ শেষের পথে, তারা আরও কিছুদিন কানাডায় থাকার সুযোগ পাবেন। এর ফলে এ ধরনের গ্র্যাজুয়েটরা কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন চালিয়ে যেতে পারবেন এবং স্থায়ী বসবাসের যোগ্যতা অর্জনের আরও ভালো সুযোগ পাবেন।

আগামী গ্রীষ্ম থেকে কানাডায় বিদেশি শিক্ষার্থী এবং পোস্ট-গ্র্যাজুয়েশন ওয়ার্ক পারমিটের (পিজিডব্লিউপি) মেয়াদ ২০২২ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হচ্ছে এমন ব্যক্তিরা ১৮ মাস পর্যন্ত বৈধ ওপেন ওয়ার্ক পারমিটের যোগ্যতা অর্জন করবেন। কানাডার অভিবাসন, শরণার্থী ও নাগরিকত্ব বিষয়ক কর্তৃপক্ষ (আইআরসিসি) বলেছে, আমরা এই প্রক্রিয়াটি আরও সহজ ও দ্রুততর করার চেষ্টা করছি। এ বিষয়ে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বিস্তারিত জানানো হবে।

এ বছর কানাডায় প্রায় ৯৫ হাজার পোস্ট-গ্র্যাজুয়েশন ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ শেষ হবে। তবে নতুন সিদ্ধান্তের ফলে অন্তত ৫০ হাজার পিজিডব্লিউপিধারী উপকৃত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

এক্সপ্রেস এন্ট্রি
কানাডায় এখনো ১০ লাখের বেশি চাকরির পদ শূন্য রয়েছে। এই ঘাটতি পূরণে আগামী জুলাই মাসের শুরু থেকে কানাডিয়ান এক্সপেরিয়েন্স ক্লাস (সিইসি), ফেডারেল স্কিলড ওয়ার্কার (এফডব্লিউসি) এবং ফেডারেল স্কিলড ট্রেড (এফএসটি) প্রার্থীদের জন্য এক্সপ্রেস এন্ট্রি ড্র ফের শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে দেশটি।

আইআরসিসির তথ্যমতে, নতুন এক্সপ্রেস এন্ট্রি আবেদনগুলোর বেশিরভাগই ছয় মাসের মধ্যে প্রক্রিয়াকরণ করা হবে। এই কাজে বর্তমানে সাত থেকে ২০ মাসের মতো সময় লাগে।

এক্সপ্রেস এন্ট্রি হলো কানাডায় স্থায়ী অভিবাসনের জন্য পয়েন্ট-ভিত্তিক প্রধান কর্মসূচি। এতে প্রার্থীদের আবেদন একটি পুলে প্রবেশ করে। এরপর তার র‌্যাংকিং হয়, ড্র অনুষ্ঠিত হয় এবং সর্বোচ্চ পয়েন্টপ্রাপ্ত প্রার্থীদের স্থায়ী বসবাসের (পিআর) জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়।

স্থায়ী বসবাসের আবেদন
পিআর আবেদন প্রক্রিয়াকরণের অপেক্ষায় থাকাকালে ওপেন ওয়ার্ক পারমিটের আবেদন করা ব্যক্তিদের জন্য ২০২০ সালের শেষ পর্যন্ত একটি বৈধ পারমিট ইস্যু করা হবে। আবেদন প্রক্রিয়াকরণ হতে থাকা অবস্থায় আবেদনকারীদের এখন আর কানাডায় থাকার প্রয়োজন হবে না।

এছাড়া কানাডার বাইরে থাকা আবেদনকারীর স্থায়ী বসবাসের আবেদনে অন্তর্ভুক্ত পরিবারের সদস্যরা তাদের নিজস্ব ওপেন ওয়ার্ক পারমিট পাওয়ারও যোগ্য হবেন।

২০২১ সালে কানাডা তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৪ লাখ ৫ হাজার বিদেশি অভিবাসীকে স্থায়ী বসবাসের অনুমতি দিয়েছে। দেশটিতে বর্তমানে ছয় লাখের বেশি বিদেশি শিক্ষার্থী রয়েছেন।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১