Pallibarta.com | বরগুনার তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান - Pallibarta.com

সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

বরগুনার তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

বরগুনার তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

বরগুনার তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান। বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলীতে কচুপাত্রা বাজারের সংযোগ সড়কের দুই পাশে সরকারী খাল দখল করে অবৈধভাবে বসবাসরতদের উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন। এসময় ওই রাস্তার পাশে গড়ে ওঠা পাকা-আধাপাকা প্রায় ১২৩টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

বুধবার (০৮ সেপ্টম্বর) বেলা ১১ টার থেকে শুরু হয়। এ উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কাওসার হোসেন ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানভীর আহম্মদ।

জানা যায়, উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের কচুপাত্রা খালের পাড়ে প্রতি রোববার বাজার বসে। এই বাজারে হাজার হাজার লোকের সমাগম হয়। গত ৫ বছর ধরে ধীরে ধীরে এই বাজারের পাশে কচুপাত্রা খালের দু’পাড় স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে নেয়। খালের দু’পাড়ে প্রায় দু’শতাধিক দোকান ঘর নির্মাণ করেছে তারা।

দোকান ও ইমারত নির্মাণ করায় একাধারে খাল সংকুচিত হচ্ছে, অন্যদিকে নাব্যতা কমে ভরাট হয়ে যাচ্ছে খালটি। নাব্যতা কমে যাওয়ায় খালে নৌযান চলাচল করতে পারছে না। খালটি এখন মরা খালে পরিণত হয়েছে।

খালটির অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে সংস্কারের দাবি জানান স্থানীয়রা। বিভিন্ন সময়ে স্থানীয়দেও দাবিতে গত বছরের ১৬ নভেম্বর জেলা প্রশাসন থেকে খালের পাড়ে থাকা ১২৩টি অবৈধ স্থায়ী ও অস্থায়ী স্থপানা ৭ দিনের মধ্যে সরিয়ে নিতে নোটিশ দেওয়া হয়।

সরিয়ে নেওয়া তো দূরের কথা, দখলদাররা নোটিশের তোয়াক্কা না করে দখল টিকিয়ে রাখার জন্য করেছিলেন প্রতিরোধ কমিটি। এতেও শেষ রক্ষা হয়নি অবৈধ দখলদারদের। এই অভিযানে এলাকার সচেতন মহল বলছে কচুপাত্রা বাজারটি তার নাব্যতা প্রাণ ফিরে পাবে।

এবিষয়ে তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কাওসার হোসেন বলেন,উচ্ছেদের আগে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য বার বার দখলদারদের নোটিশ করা হলেও অবৈধভাবে গড়ে তোলা স্থাপনা সরিয়ে না নেওয়ায় এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। আমাদের এ অভিযান চলমান থাকবে।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০