Pallibarta.com | দুই দিনেও উদ্ধার হয়নি চুরি হওয়া নবজাতক - Pallibarta.com দুই দিনেও উদ্ধার হয়নি চুরি হওয়া নবজাতক - Pallibarta.com

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

দুই দিনেও উদ্ধার হয়নি চুরি হওয়া নবজাতক

দুই দিনেও উদ্ধার হয়নি চুরি হওয়া নবজাতক

দুই দিনেও উদ্ধার হয়নি চুরি হওয়া নবজাতক ।
যশোরের শার্শা উপজেলার নাভারণ ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে চুরি হয়ে যাওয়া নবজাতক কন্যা দুইদিনেও উদ্ধার হয়নি। এতে সন্তান হারিয়ে নির্বাক হয়ে পড়েছেন মা রেকসোনা বেগম। সিসি ক্যামেরা থাকতেও এমন চুরি সন্দেহের চোখে দেখছেন সবাই।
নাভারণ ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক আবু হায়হান জানান, তার ক্লিনিক থেকে যেহেতু শিশুটি চুরি হয়েছে। তাই দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে পুলিশের পাশাপাশি তারাও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি অব্যাহত রেখেছেন।

চুরি হয়ে যাওয়া শিশুর বাবা বিল্লাল হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাতে তিনি শার্শা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ক্লিনিকের ছত্রছায়ায় এ নারীরা শিশু চুরির জন্য ক্লিনিকে অবস্থান করে ধারণা করছি। আর সুযোগ বুঝে কৌশলে চুরি করে পালিয়ে যায়। সিসি ক্যামেরা থেকেও যদি নিরাপত্তা না থাকে তাহলে সিসি ক্যামেরা থেকে লাভ কী?

এর আগে শার্শার লক্ষণপুর ইউনিয়নের সুবর্ণখালী গ্রামের বিল্লাহ হোসেন তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে গত বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে ভর্তি করান নাভারণ ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে। এদিন বিকালে শিশুটি জন্ম নেয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে মায়ের অনুপস্থিতে ক্লিনিক বেড থেকে কৌশলে এক নারী শিশুটি চুরি করে পালিয়ে যায়।
শার্শা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম জানান, সিসি ক্যামেরায় দেখা গেছে শিশুটিকে কোলে নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে এক নারী। ক্লিনিকের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বল থাকায় এ চুরির ঘটনা ঘটেছে। তবে সিসি টিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে শিশুটি উদ্ধারের কাজ চলছে জানায় পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত এক বছরে শার্শার বিভিন্ন ক্লিনিক থেকে ৩টি নবজাতক শিশু চুরির ঘটনা ঘটে। তবে ক্লিনিকের মালিকরা প্রভাবশালী হওয়ায় সব সময় পার পেয়ে যায় তারা। শুধু খালি হয় মায়ের কোল।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০