Pallibarta.com | তীব্র গ্যাস সংকটে উৎপাদন কমেছে শিল্প কারখানায় - Pallibarta.com তীব্র গ্যাস সংকটে উৎপাদন কমেছে শিল্প কারখানায় - Pallibarta.com

বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

তীব্র গ্যাস সংকটে উৎপাদন কমেছে শিল্প কারখানায়

তীব্র গ্যাস সংকটে উৎপাদন কমেছে শিল্প কারখানায়

তীব্র গ্যাস সংকটে উৎপাদন কমেছে শিল্প কারখানায় ।
গাজীপুরে গত কয়েক মাস ধরে তীব্র গ্যাস সংকটে সুতা, ডায়িং, টেক্সটাইল ও পোশাক কারখানায় উৎপাদন কমেছে। মালিকপক্ষ বলছে, নির্দিষ্ট সময়ে কাঙ্ক্ষিত উৎপাদন করতে না পারায় মারাত্মক আর্থিক লোকসানের মুখে তারা। এ অবস্থায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় হাজার হাজার শ্রমিক। তীব্র সংকটের কথা স্বীকার করে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ সমাধানে এলএমজি আমদানির কথা জানিয়েছেন।

গাজীপুরের বানিয়ার চালায় অবস্থিত মোশারফ কম্পোজিট টেক্সটাইল মিল। কারখানার সবগুলো মেশিনে লাল সংকেত। নেই চাহিদার তুলনায় গ্যাস। দিনের শুরুতেই উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চিন্তার ভাঁজ কারখানার শ্রমিকের কপালে। চাকরি জীবনে এমনটা দেখেননি আগে। সম্প্রতি দিনের বেশির ভাগ সময় গ্যাস সংকট, অনিশ্চয়তা তৈরি কারখানার শ্রমিকদের মাঝে।


শ্রমিকরা জানান, গ্যাসের চাপ খুবই কম। এই কম চাপে যদি মেশিন চালানো হয় তালে মেশিনের প্রচুর ক্ষতি হবে। এতে করে কারখানা বন্ধ হয়ে গেলে চাকরি হারানোর আশঙ্কায় আছেন শ্রমিকরা।

গাজীপুর সদর উপজেলার বেশ কিছু কারখানায় গ্যাসের চাপ একেবারেই কম। কারখানার শ্রমিকরা বলছেন, যারা উৎপাদন চুক্তিতে কাজ করেন তারা বেতন ভাতা পাচ্ছেন কম। এছাড়া চাকরি হারানোর শঙ্কাও রয়েছে।
গ্যাসের চাপ এভাবে কম থাকলে কারখানাগুলো দুর্বল হয়ে পড়বে। পাশাপাশি ব্যাংকে ঋণগ্রস্ত হয়ে উদ্যোক্তারা তাদের প্রজেক্ট বন্ধ করে দেবে বলে আশঙ্কা এই শিল্প উদ্যোক্তার।

মোশারফ গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. মোশারফ হোসেন বলেন, গ্যাসের পেসার এভাবে কম থাকলে আমাদের উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাবে। আর উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেলে ব্যাংকে ঋণগ্রস্ত হব। এতে করে আমাদের প্রজেক্টগুলো বন্ধ হয়ে যাবে।

অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং প্রয়োজনীয় গ্যাস আমদানি করে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহের জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র সদস্য মো. সালাউদ্দিন চৌধুরী।
তিনি বলেন, এখন প্রচুর এলএমজি গ্যাস আমদানি করা হচ্ছে। চেষ্টা করতে হবে আমদানি করা এলএমজি গ্যাস প্রধান শিল্পখাতে ব্যবহার করতে, যাতে উৎপান সচল থাকে।

সংকটের কথা স্বীকার করে এলএমজি গ্যাস আমদানি ও গ্যাস রেশনিং করা হচ্ছে বলে জানায় তিতাস কর্তৃপক্ষ।

প্রতি বর্গফুটে ১৫ পিএসআই গ্যাসের চাপ থাকার কথা থাকলেও সম্প্রতি সেটি ওঠানামা করছে দুই থেকে আট দশে।
সূত্র : https://www.somoynews.tv/news/2021-09-12/

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০