ঢাকাশীর্ষ-২স্বাস্থ্য

ডিএনসিসি হাসপাতালে ৭ ঘন্টায় ৮২ রোগী ভর্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনা ভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। দেশের সর্ববৃহৎ ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতালে আজ সোমবার সকাল থেকে ভর্তি শুরু হয়েছে। বিকেল ৩টা পর্যন্ত রোগী ভর্তি হয়েছে ৮২ জন। কিছু সময় পরপরই অ্যাম্বুলেন্স আসছে রোগী নিয়ে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, সকাল ৮টা থেকে রোগী ভর্তি শুরু হয়েছে। বেলা ৩টা পর্যন্ত রোগীর সংখ্যা ৮২জন। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ছিলো ৬৬ জন। ৮২ জন রোগীর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ১০ জন। ভর্তি করোনা রোগীদের তারা বেশির ভাগেরই বয়স ৬০ বছরের ওপরে।

সূত্র জানিয়েছে, ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতালটি পূর্ণাঙ্গ হলে রোগীদের জন্য ২১২ টি আইসিইউ, ২৫০টি এইচডিইউ ও ৫৪০টি আইসোলোটেড হাই কেয়ার রুম থাকবে। ৫০০ জনেরও বেশি করোনা রোগীকে একসঙ্গে উচ্চ-প্রবাহের অক্সিজেন সরবরাহ করা যাবে।

হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দিন বলেন, প্রতি মুহূর্তে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। ঢাকার বাইরে থেকে ৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। ঢাকা মহানগরীর বেশ কয়েকটি হাসপাতাল থেকে রোগী ভর্তি হয়েছে। সঠিকভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আশা করছি চিকিৎসা সেবায় কোনো ত্রুটি হবে না। এ মাসের মধ্যেই আশা করা যায় এক হাজার শয্যাই চালু করে দেব।

উল্লেখ্য, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরশনের (ডিএনসিসি) মহাখালী কাঁচাবাজারের ছয় তলা বিশিষ্ট এক লাখ ৮০ হাজার ৫৬০ বর্গফুট আয়তনের ফাঁকা ভবনে এই হাসপাতাল চালু হলো। এতদিন মার্কেটটি করোনা আইসোলেশন সেন্টার এবং বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষার ল্যাব হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। এখন করোনা হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হলেও পৃথকভাবে ওই কার্যক্রমগুলো চলবে।

নাগরিক বার্তা/ডেস্ক/তারেক

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button