Pallibarta.com | টাঙ্গুয়ার হাওরে ভোর থেকে হাজারো পর্যটক - Pallibarta.com টাঙ্গুয়ার হাওরে ভোর থেকে হাজারো পর্যটক - Pallibarta.com

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

টাঙ্গুয়ার হাওরে ভোর থেকে হাজারো পর্যটক

টাঙ্গুয়ার হাওরে ভোর থেকে হাজারো পর্যটক

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সুনামগঞ্জের তাহিরপুর ও ধর্মপাশা উপজেলায় অবস্থিত টাঙ্গুয়ার হাওর। সরকারঘোষিত বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পর থেকে দেশের নানা প্রান্তের পর্যটকদের ঢল নেমেছে ৫১ বিলের সমন্বয়ে গঠিত টাঙ্গুয়ার হাওরে।

সম্প্রতি টাঙ্গুয়ার হাওরে গিয়ে দেখা যায়, সরকারের বিধিনিষেধ কেটে যাওয়ায় সারাদেশের মতো খুলেছে এখানকার সব স্পট। সচল হয়েছে নৌকাও। ফলে প্রতিদিনই ভোর থেকে হাজারো পর্যটক আসছেন টাঙ্গুয়ার হাওরে। তাদের পদচারণায় হাসি ফুটছে হাওরপাড়ের কর্মহীনদের মুখেও। পাঁচ শতাধিক মানুষের এখন জীবিকা নির্বাহের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে হাওর এলাকা। তারা ফেরি করে, অস্থায়ী দোকান বসিয়ে অথবা ছোট নৌকায় বিক্রি করছেন চা, বিস্কুট, পান, মুড়ি, সিগারেটসহ নানা পণ্য।

এ হাওরে এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ১০টা দামের রং চা। বিশেষ করে ঘুরতে আসা পর্যটকরা পানিতে নেমে গলা বা বুক পর্যন্ত ভিজিয়ে চুমুক দিচ্ছেন চায়ে। এ মুহূর্তটি স্মার্টফোনের ক্যামেরায় ফ্রেমবন্দি করে রাখছেন অনেকে।

টাঙ্গুয়ার হাওরের ওয়াচ টাওয়ারের নিচে গিয়ে দেখা যায়, কয়েকজন তরুণ দল বেঁধে পানিতে নেমে গোসল করছেন। কয়েকজন নৌকা থেকে পানিতে ঝাঁপাঝাঁপি করছিলেন। তাদের পাশে থাকা ছোট নৌকা থেকে রং চা দিচ্ছিলেন এক বিক্রেতা। ১০ টাকায় সেই চা কিনে আয়েশ করে চুমুক দিচ্ছেন কয়েকজন।

তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রায়হান কবির জাগো নিউজকে বলেন, ‘পর্যটকরা যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাওরে ঢোকেন সেজন্য আমরা মাঠে কাজ করছি। এরই মধ্যে পুরো তাহিরপুর উপজেলায় মাইকিং করা হয়েছে। যারা স্বাস্থ্যবিধি না মেনে হাওরে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন, তাদের মধ্যে ১৪ পর্যটককে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তিন হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া আমরা পর্যটনকেন্দ্রের নৌকাঘাটে মাস্ক বিতরণ করেছি।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০