এক্সক্লুসিভচট্টগ্রামপল্লী সংবাদশীর্ষ-২

জোর করে মনোনয়ন প্রত্যাহার করানোয় আ.লীগ নেতার বিষপান

ডেস্ক রিপোর্ট:

চাপ প্রয়োগ করে ফেনীর সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য করায় এক কাউন্সিলর প্রার্থী আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে বিষপান করেছেন।

তার নাম মো. শাহজাহান। তিনি পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কাউন্সিলর প্রার্থী।

গতকাল বুধবার (২৪ মার্চ) রাতে তুলাতলী এলাকার নিজ ঘরে দরজা বন্ধ করে ফেসবুক লাইভে এসে মনোনয়ন প্রত্যাহার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার দাবি করেন। একপর্যায়ে বিষপান করেন। পরে তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। চিকিৎসক সাদেকুল করিম জানিয়েছেন, শাহজাহান আশঙ্কামুক্ত। তার চিকিৎসা চলছে।

শাহজাহান ফেসবুক লাইভে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি পৌরসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে গুরুত্ব দিতে বলায় আশ্বস্ত হয়ে হয়ে আমি সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করি। কিন্তু আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের কয়েকজন নেতা আমাকে সকাল থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে চাপ দিতে থাকেন। তাদের চাপে পড়ে আত্মগোপনে চলে যাই। বিকেলে তারা আমার বাড়ি এসে বৃদ্ধা মাকে চাপ প্রয়োগ শুরু করেন। খবর পেয়ে বাড়িতে এলে তারা আমাকে জোর করে নির্বাচন কার্যালয়ে নিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেন। যারা জোর করে আমাকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেছেন, আমার মৃত্যুর জন্য তারাই দায়ী থাকবেন।’

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শাহজাহান সাংবাদিকদের বলেন, মনোনয়ন ফরম ক্রয়ের পর থেকেই প্রত্যাহারের জন্য দলীয় কিছু লোক নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছিলেন। তারা জোর করে মনোনয়ন প্রত্যাহারে বাধ্য করায় হতাশা থেকে বিষপান করি আমি।

সোনাগাজী পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা অজিত দেব জানিয়েছেন, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে মেয়র পদে দুজন, সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নয়জন এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে একজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button