Pallibarta.com | জিনের বাদশা সেজে হাতিয়ে নেন লাখ লাখ টাকা! - Pallibarta.com

বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

জিনের বাদশা সেজে হাতিয়ে নেন লাখ লাখ টাকা!

জিনের বাদশা সেজে হাতিয়ে নেন লাখ লাখ টাকা!

জিনের বাদশা সেজে হাতিয়ে নেন লাখ লাখ টাকা!
চট্টগ্রামে জিনের বাদশা পরিচয়ে সমস্যা সমধানের নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। সবশেষ এক প্রবাসীর কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে ২৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়। এরমধ্যে কথিত জিনের বাদশা আবদুল মান্নান ওরফে জ্বীন মান্নানও রয়েছে।
আবুল হাসান সহিদ নামের এ ব্যবসায়ী সৌদি আরবে ব্যবসায়ী অংশীদারের কাছে ৩৫ কোটি টাকার বেশি হারিয়ে দেশে ফিরে এসে জিনের বাদশার খপ্পরে পড়ে। অংশীদারের কাছে হারানো টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার নাম করে কথিত জিনের বাদশা হাতিয়ে নিয়েছে ২৮ লাখ টাকার বেশি। সাথে স্বর্ণালংকারও।

এ বিষয়ে প্রতারণার শিকার ব্যবসায়ী আবুল হাসান সহিদ বলেন, জিনের মাধ্যমে আমার টাকা ফিরিয়ে দেবে, এমন কথা হয়েছিল জিন মান্নানের সাথে। কিন্তু সে আমার সাথে প্রতারণা করেছে।

প্রবাসীর অভিযোগ পেয়েই নগরীর লালদীঘি পাড় এলাকার একটি হোটেলে অভিযান চালিয়ে আটক করে তিনজনকে। আটকের পর অন্তত ১১ জন ভুক্তভোগী থানায় এসে কথিত জিনের বাদশা মান্নানের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করেন।
পুলিশের হাতে আটক হওয়ার পর কথিত জিনের বাদশা আবদুল মান্নান ওরফে জিন মান্নান এ বিষয়ে স্বীকারোক্তিও দিয়েছেন।

জিনের বাদশা আবদুল মান্নান ওরফে জিন মান্নান বলেন, জিন হাজির কেউ করতে পারে না। আমি কিভাবে করব? জিন হাজির করার কথা বলে ১০ হাজার ১২ হাজার করে নিয়েছি।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন জানান, কথিত জিন বাদশা আবদুল মান্নানের ছেলে জোবাইর হোসেন রিজভী। বিকাশের মাধ্যমে টাকা আদায় করতো রিজভী। আর আবু তৈয়ব হলো গ্রাহক ধরার এজেন্ট।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা স্বীকার করেছে, নানাভাবে তারা টার্গেটের সন্ধানে নামে। এরপর কৌশলে আদায় করা হয় লাখ লাখ টাকা। অভিনয়ের মাধ্যমে কথিত জিন হাজিরের নাটক সাজায় তারা।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১