জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করলে মাদ্রাসা খোলার প্রয়োজন নেই’

জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করলে মাদ্রাসাগুলো খোলার প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী।

মঙ্গলবার (২০ জুলাই) দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে পুনঃসংস্কার পরবর্তী কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। এর আগে, গত ২৮ মার্চ দুষ্কৃতিকারী কর্তৃক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় জেলা শিল্পকলা একাডেমি।

সে সময় উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, ‘অন্ধকারের শক্তি যারা, আলোর পথে যাত্রা চর্চা হয় সেটাকে তারা পছন্দ করে না। তাই বারবার তারা আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন, শিল্পকলা একাডেমি, শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বর, সংস্কৃতি ও মুক্তবুদ্ধি চর্চা যেখানে আছে সেখানে তারা হামলা করছে। কারণ তারা মুক্তচিন্তার বিপক্ষে। তাদের চিন্তা নিজস্ব বলয়ের ভিতরে। তারা বলেন, তারা কুরআন হাদিস নিয়ে চর্চা করেন। কিন্তু এটা সত্য নয়।’

তিনি স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, যখন এই মাদ্রাসাগুলো খুলে দেওয়া হবে তখন যেন জাতীয় সংগীত, জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস এবং ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের সরকারি কর্মসূচি যেন মাদ্রাসাগুলোয় পালন করা হয়।
‘জাতীয় শোক দিবসসহ সব রাষ্ট্রীয় দিবস পালন না করলে, জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করলে তাদের মাদ্রাসাগুলো খোলার প্রয়োজন নেই। এসব কর্মসূচি পালন করার জন্যে প্রয়োজনে আমরা মাদ্রাসাগুলোর সামনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করব।’ বলেন তিনি।

উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, এক সময় জামিয়া ইউনুছিয়ার মাদ্রাসার হুজুরেরা অখণ্ড ভারতের পক্ষে ছিলেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে ছিলেন। এখন তারা এই পথ থেকে সরে এসেছেন। এখন তারা পাকিস্তানের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। এমনকি স্বাধীন বাংলাদেশের বিপক্ষেও অবস্থান নিয়েছেন। বাংলাদেশের কৃষ্টি সংস্কৃতির বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। এ পথ থেকে তাদেরকে সরে আসার আহ্বান জানান তিনি।

সূত্রঃ সময় নিউজ

Print Friendly, PDF & Email

Translate »