Pallibarta.com | চিপস-চানাচুরবাহী গাড়িতে ৭০ হাজার ইয়াবা P

সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

চিপস-চানাচুরবাহী গাড়িতে ৭০ হাজার ইয়াবা

কক্সবাজারের রামুতে কোমল পানীয় বোতলে বিশেষভাবে লুকানো ৭০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেটসহ দুইজনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা। শুক্রবার (০৬ আগস্ট) বিকেলে কক্সবাজারের রামুস্থ বিজিবি ৩০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ইব্রাহীম ফারুক এ তথ্য জানিয়েছেন।

আটকরা হলেন-কাভার্ডভ্যানের চালক নোয়াখালীর চরদরবেশ গ্রামের মো. ফেরদৌস আলম ছেলে মো. শরিফ উল্লাহ (২৫) ও হেলপার ভোলার চরফ্যাশন থানার চরআইচা গ্রামের আব্দুল আজিজ পালোয়ানের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৩১)।

রামুস্থ বিজিবি ৩০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ইব্রাহীম ফারুক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর মাদকের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে করোনা ভাইরাস মহামারির মধ্যেও বিজিবি তাদের নিজ কর্তব্য পালন করে যাচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় নিজস্ব গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে টেকনাফ থেকে একটি কাভার্ডভ্যানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাচারের সংবাদ পাওয়া যায়।
শুক্রবার সকালে মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টে গিয়ে মরিচ্যা বাজার ও মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টে তল্লাশি কার্যক্রম জোরদার করেন। এরপর সকাল ৯টার দিকে ঢাকা থেকে টেকনাফ পটেটো চিপস এবং চানাচুর নিয়ে আসা একটি কাভার্ডভ্যান ফিরতি পথে (চট্ট মেট্টো ট-১১-৫৬৬২) কে থামানো হয়।
বিজিবি অধিনায়ক বলেন, কাভার্ড ভ্যানের চালক মো. শরিফ উল্লাহ ও হেলপার সাদ্দাম হোসেনকে ইয়াবা পাচারের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা দুইজনই তা অস্বীকার করে। পরে বিজিবি সদস্যরা ওই কাভার্ডভ্যানটি তল্লাশি করা হলে চালকের কেবিনের মধ্যে বিশেষভাবে (কোমল পানীয়র বোতলের মধ্যে) লুকায়িত অবস্থায় ১৫টি বোতলে ৭০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। এসময় পাচারকাজে ব্যবহৃত কাভার্ডভ্যান ও ২টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।
পরবর্তীতে চালক স্বীকার করেছেন যে, তিনি ঢাকা থেকে পটেটো চিপস, চানাচুর নিয়ে টেকনাফ এসেছিলেন এবং ফেরার পথে তিনি টাকার জন্য ইয়াবাগুলি নিয়ে যাচ্ছিলেন। আটককৃত আসামি, ইয়াবা ট্যাবলেট, কাভার্ডভ্যান ও মোবাইল ফোনসহ নিয়মিত মামলার মাধ্যমে রামু থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানায় বিজিবি লে. কর্নেল ইব্রাহীম ফারুক।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০