Pallibarta.com | আফগানিস্তান উড়লো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট - Pallibarta.com

বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

আফগানিস্তান উড়লো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট

আফগানিস্তান উড়লো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট

আফগানিস্তান উড়লো আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। মার্কিন বাহিনী চলে যাওয়ার পর প্রথমবারের মতো বিদেশিদের নিয়ে আফগানিস্তান ছাড়ল আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। এদিকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এখনও অন্তর্বর্তী সরকারে ঠাঁই মেলেনি আফগান নারীদের। উল্টো নারীদের সব ধরনের খেলাধুলার ওপর আনুষ্ঠানিক নিষেধাজ্ঞা জারির ঘোষণা দিয়েছে তালেবান।

এরমধ্যেই আফগান সঙ্কটের জন্য আবারও যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে চীন ও রাশিয়া। তবে আফগানিস্তানে বর্তমান মানবিক পরিস্থিতে নিঃশর্তভাবে সাহায্যের জন্য সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তান ও কাতার।

আফগানিস্তানে নতুন সরকার গঠনের পর প্রথম বারের মতো কাবুল ছাড়ল বিদেশি যাত্রীবাহী আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। বৃহস্পতিবার মার্কিন নাগরিকসহ শতাধিক বিদেশি যাত্রী নিয়ে কাবুল বিমান বন্দর ছেড়ে যায় কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমান। মার্কিনদের পাশাপাশি যে সব আফগান নাগরিকের বৈধকাগজপত্র আছে তাদের দেশ ছাড়ার অনুমতি দেয়া হবে বলে জানিয়েছে তালেবান।

তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, কাতারের প্রকৌশলীরা বিমান বন্দরের কার্যক্রম শুরু করার কাজ প্রায় সম্পন্ন করেছেন। খুব শিগগিরই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু করতে পারব বলে আশা করছি।

আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের পর এরইমধ্যে অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করেছে তালেবান। জারি করা হয়েছে শরীয়াহ আইন। সরকার গঠনের আগে নারীদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজের সুযোগ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও এবার তালেবান সাফ জানিয়েছে সব ধরনের খেলাধুলা থেকে নারীদের নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দেবে তারা।

তালেবানের সংস্কৃতি কমিশনের উপ প্রধান আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক বলেন, এটি গণমাধ্যমের যুগ। এবং এসব মাধ্যমে ছবি ও ভিডিও দেখা যায়। ইসলামিক আমিরাত নারীদের ক্রিকেট কিংবা নারীদের খোলাখুলি প্রচার করা হয় এমন কোনো খেলার অনুমতি দেবে না। তাদের খেলাধুলার প্রয়োজন নেই। আমরা ইসলামিক আইন থেকে এক চুলও নড়বো না।
এরইমধ্যে আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের পর অপ্রতিরোধ্য পানসির উপত্যকা নিয়ন্ত্রণ নেয়ারও ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। ইতালীয় টেলিভিশন চ্যানেলে প্রকাশিত ভিডিওতে তালেবানবিরোধী নেতা আহমদ শাহ মাসুদের সমাধিতে দাঁড়িয়ে বিজয় উল্লাস করতে দেখা যায়।

মার্কিন ও ন্যাটো সেনা ত্যাগের পর নতুন আফগানিস্তান নিয়ে রাজনৈতিক মেরুকরণ শুরু হয়েছে। নয়া আফগানিস্তানে আধিপত্য বিস্তারে মরিয়া পাকিস্তান, রাশিয়া, চীনসহ বিভিন্ন দেশ। যে কারণে দোষারোপের রাজনীতিতে মেতে উঠেছে অনেকে। বর্তমান আফগান সঙ্কটের জন্য আবারও যুক্তরাষ্ট্রকেই দায়ী করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তালেবান নেতৃত্বাধীন আফগানিস্তান নিয়ে বৈশ্বিক নিরাপত্তার কি হবে সে নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন তিনি। ব্রিকস সম্মেলনে ব্রাজিল, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে অনলাইন কনফারেন্সে এ সব কথা বলেন পুতিন।

মার্কিন সেনা প্রত্যাহারকে দায়িত্বজ্ঞানহীন পদক্ষেপ আখ্যা দিয়েছে চীন। যুক্তরাষ্ট্রের অদূরদর্শী সিদ্ধান্তের কারণে আফগানিস্তানে মানবেতর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বেইজিং দের দাবি, যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক সংস্কার ও জীবন মান উন্নয়নের কথা বললেও তারা কাবুল বিমান বন্দর সহ আফগানিস্তানকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করে গেছে।

তবে প্রথমবারের মতো মার্কিন ও বিদেশি যাত্রীদের কাবুল ছাড়ার সুযোগ দেয়ায় তালেবানের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ভবিষ্যতে তালেবান বৈধ ও স্থায়ী নাগরিকদের এই সুযোগ দেওয়া অব্যাহত রাখবে বলেও আশা প্রকাশ করে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবারও বলেছেন, তালেবানের নেওয়া পদক্ষেপের ওপর নির্ভর করছে বাইডেন প্রশাসনের স্বীকৃতি। তবে তালেবানের নতুন অন্তর্বর্তী সরকার নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তালেবান তাদের সরকার গঠন করতে ব্যর্থ হয়েছে বলেও জানায় জোটটি।

তবে আফগানিস্তানের বর্তমান মানবিক পরস্থিতিতে দেশটিকে সহায়তায় নিঃশর্তভাবে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তান ও কাতার।

আরো পড়ুন ...

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০